Home / মিডিয়া নিউজ / ৭ নায়িকার ফর্সা হয়ে উঠার রহস্য

৭ নায়িকার ফর্সা হয়ে উঠার রহস্য

বলিউডের নায়িকা মানেই গ্ল্যামারের ঝলকানি। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে অভিনয়ের চেয়ে শরীরি চাকচিক্যই

নায়িকা হওয়ার যোগ্যতার মাপকাঠি। তাই নায়িকাদের হতে হয় ধবধবে ফর্সা। নায়িকাদের ফর্সা ত্বকের

প্রতি অবসেশন এখন আর নতুন কোনো বিষয় নয়। এটা সবারই জানা। ভারতীয় সমাজের সৌন্দর্যের

সাধারণ এ মাপকাঠি অর্জনে তাদের চেষ্টা কমতি নেই। তাই তারকা খ্যাতির সঙ্গে সঙ্গে পাল্টাতে থাকে নায়িকাদের গায়ের রং। তেমন ৭ নায়িকার কথা জেনে নিন, যাদের গায়ে এক সময়ে ফর্সার লেস মাত্র ছিল না। কাজল : বলিউডের সবচেয়ে আদুরে লুকের নায়িকা কাজল। ক্যারিয়ারের শুরুতে বাদামি ত্বকের ভারতীয় কিশোরী বলতে যা বুঝায়, তেমনই ছিলেন কাজল। আর ছিল সুন্দর বড় চোখ। আর এখন দেখুন কতো উজ্জ্বল রং নিয়ে ঘুরে বেড়ান কাজল। নতুন সিনেমা ‘দিলওয়ালে’র ট্রেলারে কাজলের গ্ল্যামারের ঝলকানিতে তো এখন বলিউড দর্শকরা অস্থির। বলা হয়ে থাকে সার্জারির মধ্যে ত্বকের মেলানিনের ঘনত্বে হেরফের করিয়েছেন অজয় পত্মী। যদিও তিনি গুজব বলে কথাটা উড়িয়ে দেন। তবে কাজলের দ্বিতীয় সিনেমা ‘বাজিগর’ দেখতে বুঝতে পারবেন কিছু না কিছু তো বদল ঘটেছে। প্রিয়াঙ্কা চোপড়া : খুব কম বয়সেই মাথায় উঠেছে মিস ওয়ার্ল্ডের মুকুট। এর পরপরই বলিউডে ডাক পান। তারপর তো এলেন আর জয় করলেন পেুরো বলিউড। যুগের ব্যবধানে দেখুন তার গায়ের রং কতটা পাল্টে গেছে। এখন তো তিনি হলিউড-বলিউডের ব্যস্ত তারকা। মজার বিষয় হলো এখনো গায়ের রং পাল্টাতে তাকে প্রচুর মেকআপ নিতে হয়। দীপিকা পাড়ুকোন : প্রিয়াঙ্কার মতোই তার গায়ের ছিল প্রথমদিকে। খ্যাতির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে এ তারকা দিন দিন ফর্সা হয়ে উঠেছেন। গুজব আছে ‘চেন্নাই এক্সপ্রেস’ তারকা স্কিন লাইটেনিং ট্রিটমেন্টের শরণাপন্ন হয়েছে। বরাবরই এ নিয়ে তিনি কথা বলতে অনাগ্রহী। কিন্তু পরিবর্তন দিনের আলোর মতোই সত্য। শিল্পা শেঠি : পরিবর্তন এতোই বেশি যে শিল্পা শেঠি কখনোই অস্বীকার করতে পারবেন না। ক্যারিয়ার শুরুর শিল্পা আর এখনকার শিল্পার মাঝে আকাশ-পাতাল পার্থক্য। এর জন্য তাকে অনেক অনেক সার্জারির আশ্রয় নিতে হয়েছে। বিপাশা বসু : শূন্য দশকে বলিউডে অভিষেক হয় বাঙালী ললনা বিপাশা বসুর। তিনি তো সাদা-কালোর নিয়মই ভেঙে দিয়েছেন। কালো বর্ণ নিয়েও বলিউডে জনপ্রিয় হওয়া যায়— এমন ধারণা প্রতিষ্ঠা করেই ফেলেছিলেন। কিন্তু তা বেশিদিন ধরে রাখেননি। তাকেও নিতে হয়ে কসমেটিক সার্জারির আশ্রয়। রেখা : বলিউডের সর্বকালের সেরা নায়িকাদের অন্যতম রেখা। দেখে মনে হয় তার গ্ল্যামার কখনো চিড় ধরার নয়। কিন্তু যখন ক্যারিয়ার শুরু করেন, তখন শুধু বাদামী চামড়ার সাধারণ এক মেয়ে। নির্মাতা ফিরিয়েও দিয়েছিলেন তাকে। এরপর অভিনয় গুণে দক্ষিণী সিনেমা থেকে ডাক ফেলেন মুম্বাইয়ে। আর ফেম ও টাকার সঙ্গে সঙ্গে বদলে গেছে তার চেহারা। শ্রীদেবী : প্রতিদ্বন্দ্বী রেখার মতো শ্রীদেবীর চেহারার রং একই রকমই ছিল। এতোজনের পর তার বদলে যাওয়া নিয়ে নতুন কী বলার আছে! শুধু বলতে হয় দিন দিন তিনি আরো গর্জিয়াস হয়ে উঠছেন।

Check Also

আমি নায়িকা ছিলাম, নায়িকা হয়েই মরবো: নূতন

ঢাকাই সিনেমার সোনালি যুগের জনপ্রিয় অভিনেত্রী নূতন। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে মূল থেকে পার্শ্ব চরিত্র; তিন শতাধিক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *