Home / মিডিয়া নিউজ / ‘সেই’ সানাই কিন্তু এই সানাই

‘সেই’ সানাই কিন্তু এই সানাই

এখনো বড় পর্দায় কোন ছবি মুক্তি পায়নি আলোচিত মডেল ও অভিনেত্রী সুপ্রভা মাহবুব বিনতে সানাইয়ের।

তবুও বিভিন্ন কারণে কয়েকদিন পর পর আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে চলে আসেন এই অভিনেত্রী।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপেশাদার ছবি প্রকাশ করে বিতর্কের জন্ম দেন তিনি। নিজের দেহবল্লহি আরো

আকর্ষনীয় করতে থাইল্যান্ডে ৩৫ লাখ টাকা খরচে করিয়েছেন ব্রেস্ট ইমপ্ল্যান্ট। যার মাধ্যমে স্তনের

আকার ৩৬ থেকে ৪৪ ইঞ্চিতে বৃদ্ধি পেয়েছে। আর এ নিয়ে চারদিকে হৈ চৈ পড়ে গিয়েছিলো। নিজেকে অশ্লীল ভঙ্গিতে উপস্থানপন করেই আলোচনায় আসার চেষ্টা ছিলো তার। এর প্রমাণ তার অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে খোলামালা পোশাকের লাইভ ভিডিওগুলো আর বিভিন্ন ইউটিউব চ্যানেলের ইন্টারভিউ।

সম্প্রতি এ অভিনেত্রী নিজের চার বছর আগের এবং বর্তমানের একটি ছবি পোস্ট করেন নিজের ফেসবুকে। সঙ্গে লিখেন, জন্মদিনের আগে আমি এটা পোস্ট না দিয়ে থাকতেই পারলাম না। প্রথম ছবিটা ২০১৫ সালে আমার স্ট্যামফোর্ড ইউনিভার্সিটির (ধানমন্ডি ক্যাম্পাস) এর সামনে তোলা। পরেরটা ২০১৯ সালে স্টুডিওতে তোলা। কি দারুণ লাইফ!

উল্লেখ্য, সানাই এর জন্ম ঢাকার ধানমন্ডিতে হলেও তার পৈত্রিক নিবাস নীলফামারিতে। পড়াশোনার জন্য তিনি বেশ কিছুদিন রংপুরে ছিলেন। তার বাবা-মা উচ্চপদস্থ বেসরকারী কর্মকর্তা। সানাই এখন ঢাকায় স্থায়ীভাবে বসবাস করেন।

নাবিলা, স্মার্টেক্স, নাগরদোলা ইত্যাদি ফ্যাশন হাউজে মডেল হিসেবে কর্মজীবন শুরু করেন তিনি। জনপ্রিয়তা পাওয়ার পর বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে উপস্থাপিকা হিসেবেও কাজ করেছেন। এরপর ২০১৬ সালের নভেম্বর মাসে ঢাকার গুলশান ক্লাবে একটু ফ্যাশন শো চলাকালীন সময়ে বাংলাদেশী চলচ্চিত্র নির্মাতা গাজী মাহবুবের সঙ্গে সানাই এর পরিচয় হয়। গাজী মাহবুব তখন তার নির্মানাধীন চলচ্চিত্র ভালোবাসা ২৪×৭ এর জন্য সানাইকে চিত্রনায়িকা হিসেবে পছন্দ করেন। এই চলচ্চিত্রে সানাই এর বিপরীতে অভিনয় করেন জায়েদ খান।

এরপর তিনি সুপ্ত আগুন, সাহসী যোদ্ধা, ময়নার ইতিকথা, প্রতিশোধ, প্রতীক্ষাসহ প্রায় ৮টি চলচ্চিত্রে চিত্রনায়িকা হিসেবে অভিনয় করার জন্য চুক্তিবদ্ধ হন।

Check Also

আমি নায়িকা ছিলাম, নায়িকা হয়েই মরবো: নূতন

ঢাকাই সিনেমার সোনালি যুগের জনপ্রিয় অভিনেত্রী নূতন। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে মূল থেকে পার্শ্ব চরিত্র; তিন শতাধিক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *